সোমবার (২৮ আগস্ট) স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এই সাজা ঘোষণা করেন সিবিআই’র বিশেষ আদালতের বিচারক জগদীপ সিংহ। গত শুক্রবার (২৫ আগস্ট) রাম রহিমকে দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন একই আদালত। তবে সেদিন হরিয়ানার পঞ্চকুলায় স্থাপিত সিবিআই’র বিশেষ আদালতে রায় ঘোষণা হলেও নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে সোমবার সাজা ঘোষণা হয় রাজ্যের রোহটাক কারাগারের ভেতরে। সাজা ঘোষণার জন্য বিচারক জগদীপ সিংহকে হেলিকপ্টারযোগে নিয়ে আসা হয় কারাগারের ভেতরে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে।

সাজা ঘোষণার পর তৎক্ষণাৎ সংবাদমাধ্যম ও মামলার বাদী সিবিআই জানায়, রাম রহিমকে ১০ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সন্ধ্যার পর রায়ের কপি হাতে এলে আইনজীবীরা বলেন, আসলে দুই নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দু’টি হওয়ায় প্রত্যেক মামলায় ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে রাম রহিমকে। এছাড়া, অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে ১৫ লাখ রুপি করে মোট ৩০ লাখ রুপি।

এ বিষয়ে সন্ধ্যার পর হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাত্তার বলেন, রাম রহিম সিংকে মোট ২০ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তিনি ১০ বছর করে ২০ বছর কারাভোগ করবেন। দেবেন দুই মামলায় মোট ৩০ লাখ রুপি অর্থদণ্ডও। এরমধ্যে ১৪ লাখ রুপি করে দিতে হবে ধর্ষণের শিকার দুই নারীকে।